প্রিয় বন্ধুরা আমরা যারা মোবাইল ফোন ব্যবহার করে আমরা সবাই জানি আমাদের মোবাইল ফোনের সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ যে বিষয়টি হলো সেটা হলো আমাদের মোবাইল ফোনের ব্যাটারি যদি আমাদের মোবাইল ফোন অ্যান্ড্রয়েড হয় তাহলে বা আইফোন হয় যে কোনো ফোন হোক না কেন ব্যাটারি লাইফ এর গুরুত্ব সব ক্ষেত্রেই সমান স্বাধীনতা ই ইন্ড ডিভাইস গুলোতে একটুও চার্জ বেশি থাকে না তাহলে চলুন দেখি আমরা কিভাবে ব্যাটারি লাইফ বাড়াবো সেই বিষয় নিয়ে আলোচনা করে

প্রথমে বলবো ব্রাইটনেস এর কথা আমরা অনেকেই একটি ভুল ধারণা নিয়ে আছি অটো ব্রাইটনেস ব্যবহার করলে নাকি চার্জ বেশি থাকে এটা আসলে ভুল আপনার ডিভাইসে অটো ব্রাইটনেস দিয়ে রাখেন তখন সে প্রয়োজনের তুলনায় ডিসপ্লে ব্রাইটনেস দিয়ে রাখবে যার কারণে অধিক পরিমাণ চার্জ খরচ হবে সেই ক্ষেত্রে অটো ব্রাইটনেস এর পরিবর্তে আপনি আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী ব্যবহার করতে পারেন অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের আরেকটি বিচার হলো আপনার ব্যাটারি চার্জ কমে যায় তাহলে শোন যখন আসে বা  মোবাইল ফোন ভাইব্রেসন করে অনেকেই কে বোর্ড ভাইব্রেশন অন করে রাখে বারবার ডিভাইস ভাইব্রেশন হয় আর এম ভাইব্রেশনের জন্য রিচার্জের প্রয়োজন হয় সেটা কিন্তু আপনার ব্যাটারি তে কি আছে তাই আপনি ভাইব্রেশন অফ করে দিবেন

প্রিয় বন্ধুরা আপনার ডিভাইসটিকে ভালো ব্যাটারি ব্যাকআপ আশা করতে হলে আপনাকে অবশ্যই সব সময় অরিজিনাল ব্যাটারি ব্যবহার করতে হবে যদি কোন কারণে আপনার অরজিনাল ব্যাটারি নষ্ট হয়ে যায় তবে নতুন ব্যাটারি কেনার ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনি  ব্যাটারি নিতে হবে টাকা একটু বেশি করা ছিল আপনার ডিভাইস ভালো থাকবে চাকরি করবে তাই আপনি ভালো ব্র্যান্ডের একটি ব্যাটারি কিনতে পারেন

লকেশ কিন্তু বেশি দেওয়া ডিফল্ট সেটিং গুলো আপনি ব্যবহার করাই ভালো হবে কারণ এতে ভিজিটের জন্য আলাদা কোন সফটওয়্যার ব্যবহার করার প্রয়োজন পড়ে না যা প্রচলিত আপনার ডাটা কানেকশন ব্যাবহার করে রিফ্রেশ হবে এবং আপনার ব্যাটারি থেকে খরচ করবে তাই অনেক সময় আমরা হোমস্ক্রিনে কাস্টমাইজেশন করার জন্য বিভিন্ন প্রয়োজনে বিভিন্ন ব্যবহার করি ব্যাটারি সেভ করার জন্য প্রয়োজনীয় হোমস্ক্রিন থেকে রিমুভ করে দিতে পারেন এতে করে আপনার ব্যাটারি ভালো থাকবে

প্রিয় বন্ধুরা আমরা অনেক সময় আমাদের ডিভাইসে ইন্সটল করা কিছু অ্যাপ গুলো আপডেট করার যেমন প্রয়োজনীয়তা রি না কারণ অনেকে মনে করেন সফটওয়্যার আপডেট করা মানে বাড়িতে একটি ডাটা খরচ আসলে এটা ভুল ধারণা একটা কথা ছিল আপনি ডিভাইসের সফটওয়্যার গুলো আপডেট দিন কারণ ডেভলপাররা এর সাথে কোন ধরনের সমস্যা ছাড়াই আপনার ডিভাইসে চলে এবং কম চার্জ খরচ করে সেইজন্য আপডেট করে থাকে সবসময়

সর্বশেষ যে কথাটি বলবো সেটা হল আপনার ডিভাইসে তাকা গুগল প্লে  স্টরে থেকে অটো আপডেট বন্ধ করে দিন প্রয়োজন অনুযায়ী আপনি সফটওয়্যার গুলো আপডেট করে নিবেন

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *