প্রিয় বন্ধুরা কেমন আছেন আশা করি ভাল আছেন সবাই আজ আমি আপনাদের সামনে স্পেস স্টেশন নিয়ে আলোচনা করার জন্য হাজির হয়েছি গত পর্বে মহাকাশ অভিযান নিয়ে আলোচনা করেছিলাম আর আপনাদের সামনে কি কি হয় সেখানে এগুলো নিয়ে আপনাদের সামনে আলোচনা করব আপনারা যারা জানেননা  স্টেশন নিয়ে তারা আজ হয়তো নতুন কিছু জানতে পারবেন তাহলে চলুন কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক স্পেস স্টেশন নিয়ে টেকনোলজির আজকের গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা

আমাদের পৃথিবী থেকে গবেষকদের একটি দল স্পেস স্টেশনে গিয়ে করে এবং আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে এটার মাধ্যমে দূর গ্রহসমূহের উপর গবেষণা পরিচালনা করেন এবং পৃথিবীর কমপক্ষে স্পেস স্টেশন দাফন হয়েছে মহাশূন্য গবেষণার জন্য এই স্পেস স্টেশন এর জন্ম স্পেস স্টেশনের কোন যন্ত্র নষ্ট হলে স্পেস স্টেশনের বাইরে এসে সেগুলো বাইরে  নেওয়া হয় ঝুঁকি নিয়ে বিজ্ঞানীরা এই কাজগুলো করে থাকে না রজগতের কোন গ্রহ প্রাণের অস্তিত্ব আছে কিনা এটা জানার জন্য তারা বিভিন্ন ধরনের মেশিনে রোবট ব্যবহার করে যাচ্ছেন এইসব ক্ষেত্রে বিজ্ঞানীরা পুরো কার্যক্রম পরিচালনা করেন তথ্য প্রযুক্তির উপর নির্ভর বিভিন্ন টেলিযোগাযোগ এবং বাস্তব জীবনের অভিজ্ঞতা থেকে

প্রিয় বন্ধুরা এই স্পেস স্টেশন নিয়েছিল আজকের আলোচনা সাগর আজকের আলোচনা আপনাদের কাছে অনেক অনেক ভালো লেগেছে যদি আজকের আলোচনা তাদের কাছে ভাল লেগে থাকে অবশ্যই আপনার বন্ধু বান্ধবের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না প্রিয় বন্ধুরা আমাদের কাছে আপনার মনের যত প্রশ্ন আছে সবগুলি কমেন্ট বক্সে করতে পারেন আমরা আপনার প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন আল্লাহ হাফেজ আসসালামু আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি ওয়াবারাকাতুহ

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *